প্রকাশিতঃ February 04, 2020 12:12 PM
A- A A+ Print

ভুল প্রশ্নে পরীক্ষা দিয়ে কান্নায় ভেঙে পড়ল অর্ধশতাধিক শিক্ষার্থী

বরিশাল নগরীর এসএসসি পরীক্ষার একটি কেন্দ্রে ২০১৮ সালের প্রশ্নপত্র দিয়ে অর্ধশতাধিক পরীক্ষার্থীর পরীক্ষা গ্রহণ করা হয়েছে। সোমবার (০৩ ফেব্রুয়ারি) দুপুর ১টার দিকে পরীক্ষা শেষ হওয়ার পর এ ভুল ধরা পড়ে।

নগরীর হালিমা খাতুন বালিকা বিদ্যালয় কেন্দ্রের দুটি কক্ষে ভুল প্রশ্নপত্র বিতরণ করা হয়েছিল পরীক্ষার্থীদের মধ্যে। ভুল প্রশ্নপত্রেই তাদের পরীক্ষা গ্রহণ করা হয়। এ সময় পরীক্ষার হল থেকে বেরিয়ে কাঁদতে শুরু করে অর্ধশতাধিক শিক্ষার্থী।

বিষয়টি জানতে পেরে বরিশাল শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যাপক মো. ইউনুস দুপুরে ওই কেন্দ্র পরিদর্শন করেন এবং পরীক্ষার্থীরা যাতে ক্ষতিগ্রস্ত না হয় সেটি খতিয়ে দেখবেন বলে জানান।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, এসএসসি পরীক্ষার প্রথম দিন বাংলা প্রথমপত্রের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। হালিমা খাতুন বালিকা বিদ্যালয় কেন্দ্রের দুটি কক্ষে নগরীর জগদীশ সারস্বত গার্লস স্কুল অ্যান্ড কলেজের অর্ধশতাধিক পরীক্ষার্থী অংশ নেয়।পরীক্ষা শুরুর পর তাদের পুরোনো সিলেবাসের প্রশ্নপত্র দেয়া হয়। প্রশ্ন দেখে বিভ্রান্ত হয়ে পড়ে শিক্ষার্থীরা। পরীক্ষা শেষে অন্যান্য কক্ষের পরীক্ষার্থীদের সঙ্গে প্রশ্ন মেলানো হলে ভুল প্রশ্নপত্র বিতরণের বিষয়টি ধরা পড়ে। এ সময় তারা কান্নায় ভেঙে পড়ে।

পরীক্ষার্থীদের কয়েকজন অভিভাবক বলেন, শিক্ষকদের ভুলে আমাদের সন্তানদের শিক্ষাজীবন হুমকিতে পড়েছে। ওই কেন্দ্রের শিক্ষকদের গাফিলতির কারণে এ পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে। অভিযুক্ত শিক্ষকদের কঠোর বিচার চাই আমরা।

 বরিশাল ক্রাইম নিউজ ডট কম

ভুল প্রশ্নে পরীক্ষা দিয়ে কান্নায় ভেঙে পড়ল অর্ধশতাধিক শিক্ষার্থী

Tuesday, February 4, 2020 12:12 pm

বরিশাল নগরীর এসএসসি পরীক্ষার একটি কেন্দ্রে ২০১৮ সালের প্রশ্নপত্র দিয়ে অর্ধশতাধিক পরীক্ষার্থীর পরীক্ষা গ্রহণ করা হয়েছে। সোমবার (০৩ ফেব্রুয়ারি) দুপুর ১টার দিকে পরীক্ষা শেষ হওয়ার পর এ ভুল ধরা পড়ে।

নগরীর হালিমা খাতুন বালিকা বিদ্যালয় কেন্দ্রের দুটি কক্ষে ভুল প্রশ্নপত্র বিতরণ করা হয়েছিল পরীক্ষার্থীদের মধ্যে। ভুল প্রশ্নপত্রেই তাদের পরীক্ষা গ্রহণ করা হয়। এ সময় পরীক্ষার হল থেকে বেরিয়ে কাঁদতে শুরু করে অর্ধশতাধিক শিক্ষার্থী।

বিষয়টি জানতে পেরে বরিশাল শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যাপক মো. ইউনুস দুপুরে ওই কেন্দ্র পরিদর্শন করেন এবং পরীক্ষার্থীরা যাতে ক্ষতিগ্রস্ত না হয় সেটি খতিয়ে দেখবেন বলে জানান।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, এসএসসি পরীক্ষার প্রথম দিন বাংলা প্রথমপত্রের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। হালিমা খাতুন বালিকা বিদ্যালয় কেন্দ্রের দুটি কক্ষে নগরীর জগদীশ সারস্বত গার্লস স্কুল অ্যান্ড কলেজের অর্ধশতাধিক পরীক্ষার্থী অংশ নেয়।পরীক্ষা শুরুর পর তাদের পুরোনো সিলেবাসের প্রশ্নপত্র দেয়া হয়। প্রশ্ন দেখে বিভ্রান্ত হয়ে পড়ে শিক্ষার্থীরা। পরীক্ষা শেষে অন্যান্য কক্ষের পরীক্ষার্থীদের সঙ্গে প্রশ্ন মেলানো হলে ভুল প্রশ্নপত্র বিতরণের বিষয়টি ধরা পড়ে। এ সময় তারা কান্নায় ভেঙে পড়ে।

পরীক্ষার্থীদের কয়েকজন অভিভাবক বলেন, শিক্ষকদের ভুলে আমাদের সন্তানদের শিক্ষাজীবন হুমকিতে পড়েছে। ওই কেন্দ্রের শিক্ষকদের গাফিলতির কারণে এ পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে। অভিযুক্ত শিক্ষকদের কঠোর বিচার চাই আমরা।

সম্পাদক ও প্রকাশক : খন্দকার রাকিব ।
ফকির বাড়ি, ৫৫৪৫৪ বরিশাল।
মোবাইল: ০১৭২২৩৩৬০২১
ইমেইল : rakibulbsl@gmail.com, barisalcrimenews@gmail.com
  বরিশাল প্রেসক্লাবে মুজিবশতবর্ষ উদযাপন   ২৬ ফেব্রুয়ারী শুরু হচ্ছে চরমোনাইয়ের বাৎসরিক মাহফিল, চলছে ব্যাপক প্রস্তুতি   প্রধানমন্ত্রীর স্বপ্ন বাস্তবে রূপ নিতে শুরু করেছে-পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী   বরিশালে আন্তজেলা মোটরসাইকেল চোর চক্রের তিন হোতা আটক   প্লাস্টিক পন্য রাষ্ট্রীয়ভাবে নিষিদ্ধ করার পরামর্শ রাষ্ট্রপতির   ভুল প্রশ্নে পরীক্ষা দিয়ে কান্নায় ভেঙে পড়ল অর্ধশতাধিক শিক্ষার্থী   ৪২ কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ দিতে আদম তমিজিকে ব্রিটিশ নাগরিকের নোটিশ   ভোটের প্রতি মানুষের অনীহা গণতন্ত্রের জন্য শুভ নয় : কাদের